Breaking News
* 'দেশের বিভিন্ন স্থানে মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত' * 'শিক্ষক পদে নিয়োগের চূড়ান্ত সুপারিশ পেলেন ৩৪ হাজার' * 'দেশে করোনায় আরো মৃত্যু ১২, শনাক্ত ১১,৪৩৪' * 'র‌্যাব কাজেকর্মে অত্যন্ত দক্ষ, জনগণের আস্থা অর্জন করেছে': পররাষ্ট্রমন্ত্রী * 'করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ৬ দফা জরুরি নির্দেশনা' * 'হজরত মুহাম্মদ (সা:)কে নিয়ে অপমানজনক পোস্ট শেয়ার করায় এক নারীর মৃত্যুদণ্ড' * 'রাশিয়ার জন্য চরম বিপর্যয় অপেক্ষা করছে' * 'ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষাব্যবস্থা তৈরি করলো তুরস্ক' * 'আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ' * 'মাতুয়াইলে বাসচাপায় একই পরিবারের ৩ যাত্রী নিহত'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বাধিক আলোচিত

POOL

বিচার ব্যবস্থার যত উন্নয়ন সব আওয়ামী লীগের সময়েই হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আপনি কি তাঁর সাথে একমত?

Note : জরিপের ফলাফল দেখতে ভোট দিন

'পাকিস্তান ও তালেবান সীমান্তরক্ষীদের মধ্যে উত্তেজনা গুলি বিনিময়'

14-01-2022 | 12:12 am
আন্তর্জাতিক

পাকিস্তানের সঙ্গে ডুরান্ট লাইন নিয়ে উত্তেজনার জের ধরে এ সম্পর্কে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেছে আফগানিস্তানের অন্তর্বর্তী তালেবান সরকার।

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পাকিস্তানের সঙ্গে ডুরান্ট লাইন নিয়ে উত্তেজনার জের ধরে এ সম্পর্কে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেছে আফগানিস্তানের অন্তর্বর্তী তালেবান সরকার। পাকিস্তানে তালেবানের বিশেষ প্রতিনিধি আহমাদ খান শাকিব বলেছেন, ডুরান্ট লাইন নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতা তালেবান সরকারের নেই। খবর পার্স টুডের।

আহমাদ খান শাকিবের বরাত দিয়ে আফগানিস্তানের বার্তা সংস্থা আওয়া জানিয়েছে, ‘তালেবান প্রশাসন বা এই গোষ্ঠীর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একাকী ডুরান্ট লাইনের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতা রাখে না।’

তিনি এমন সময় এ বক্তব্য দিলেন যখন সাম্প্রতিক সময়ে ডুরান্ট লাইন বরাবর পাকিস্তান ও তালেবান সীমান্তরক্ষীদের মধ্যে উত্তেজনা এমনকি গুলি বিনিময়ও হয়েছে।

কয়েকদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ছড়িয়ে পড়া এক ভিডিওতে দেখা গেছে, ডুরান্ট লাইনে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের কাজে পাকিস্তানের সীমান্তরক্ষীদের বাধা দিচ্ছে তালেবান সেনারা এবং তারা কাঁটাতারের বেড়া সরিয়ে ফেলছে।

পাকিস্তান ২০১৭ সাল থেকে ডুরান্ট লাইন বরাবর কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের কাজ শুরু করে। আফগানিস্তানের তৎকালীন আশরাফ গনি সরকার ওই বেড়া নির্মাণের বিরোধিতা করলেও কখনও পাকিস্তানকে এ কাজে বাধা দেয়নি। ২০২০ সালের আগস্ট মাসে গনি সরকারের পতন পর্যন্ত বেড়া নির্মাণের ৯০ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়।

আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের মধ্যকার ২ হাজার ৬০০ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্ত বিভক্তকারী রেখাকে বলা হয় ডুরান্ড লাইন। ১৮৯৩ সালে তৎকালীন ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি আফগানিস্তানের তৎকালীন শাসক আব্দুর রহমান খানের সঙ্গে এক চুক্তি সই করে।ওই চুক্তিতে পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের মধ্যকার বর্তমান বিভক্তরেখা নির্ধারণ করা হয় যার নাম হয় ডুরান্ট লাইন। কিন্তু ওই চুক্তির কোনো সময়সীমা ছিল না বলে এই লাইনটি এখন পর্যন্ত পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের মধ্যকার স্থায়ী সীমান্ত হিসেবে স্বীকৃতি পায়নি। পাকিস্তান এটিকে আন্তর্জাতিক সীমান্তে পরিণত করার প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ করলেও দৃশ্যত আফগানিস্তানের পক্ষে এই উদ্যোগ মেনে নেয়া সম্ভব হচ্ছে না।

কমেন্ট

<<1>>

নাম *

কমেন্ট *

সম্পর্কিত সংবাদ

© ২০১৬ | এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি | dainikprithibi.com
ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট - মোঃ রেজাউল ইসলাম রিমন