Breaking News
* 'দেশের বিভিন্ন স্থানে মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত' * 'শিক্ষক পদে নিয়োগের চূড়ান্ত সুপারিশ পেলেন ৩৪ হাজার' * 'দেশে করোনায় আরো মৃত্যু ১২, শনাক্ত ১১,৪৩৪' * 'র‌্যাব কাজেকর্মে অত্যন্ত দক্ষ, জনগণের আস্থা অর্জন করেছে': পররাষ্ট্রমন্ত্রী * 'করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ৬ দফা জরুরি নির্দেশনা' * 'হজরত মুহাম্মদ (সা:)কে নিয়ে অপমানজনক পোস্ট শেয়ার করায় এক নারীর মৃত্যুদণ্ড' * 'রাশিয়ার জন্য চরম বিপর্যয় অপেক্ষা করছে' * 'ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষাব্যবস্থা তৈরি করলো তুরস্ক' * 'আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ' * 'মাতুয়াইলে বাসচাপায় একই পরিবারের ৩ যাত্রী নিহত'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বাধিক আলোচিত

POOL

বিচার ব্যবস্থার যত উন্নয়ন সব আওয়ামী লীগের সময়েই হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আপনি কি তাঁর সাথে একমত?

Note : জরিপের ফলাফল দেখতে ভোট দিন

'৮৬ বছরের বৃদ্ধা ৬৭ বছর গোসলই করেননি'

09-01-2022 | 01:19 pm
অফবিট

বয়স তার ৮৬ বছর। তবে অশীতিপর এই বৃদ্ধ ৬৭ বছর গোসলই করেননি। শুনতে গ্রিক মিথোলজির কোনো চরিত্র মনে হলেও ছয় দশকের বেশি সময় গোসলের ধারেকাছে না যাওয়া এই ব্যক্তির সন্ধান মিলেছে ইরানে।

ডেস্ক : বয়স তার ৮৬ বছর। তবে অশীতিপর এই বৃদ্ধ ৬৭ বছর গোসলই করেননি। শুনতে গ্রিক মিথোলজির কোনো চরিত্র মনে হলেও ছয় দশকের বেশি সময় গোসলের ধারেকাছে না যাওয়া এই ব্যক্তির সন্ধান মিলেছে ইরানে। দেশটির কেরমানশাহ প্রদেশের দেজগাহ গ্রামের বাসিন্দা আমো হাজির গোসল না করার এই খবর দিয়েছে তেহরান টাইমস।

এক অনলাইন প্রতিবেদনে ইরানি সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, আমো হাজির গোসল না করার ঘটনা এরইমধ্যে নেটদুনিয়ায় চর্চা হচ্ছে। গোসল না করার পাশাপাশি জীবনাচারেও অদ্ভুত আমো হাজি। তিনি মৃত পশুর মাংস ভক্ষণ করেন। পোশাক পরিধানেও আর দশজন মানুষের থেকে একদম ভিন্ন এই বৃদ্ধ। এছাড়া গোঁফ দাড়িও কোনো নাপিতের কাছে গিয়ে কাটেননি তিনি।

তেহরান টাইমসকে আমো হাজি বলেছেন, পানি দেখলেই তার মনে ভয় উদ্রেক হয়। তার মনে হয় পানি ধরলেই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়বেন। দীর্ঘ কয়েক দশক গোসল না করার ফলে তার চুল ও ত্বক কিছুটা রুক্ষ হলেও নিজেকে একদম সুস্থ বলেই দাবি আমোর।

ভাইরাল হওয়া একটি ছবিতে এই বৃদ্ধকে দেখা গেছে, তিনি যেন প্রাচীনকাল থেকে উঠে আসা কোনও চরিত্র। গোঁফ—দাড়িতে ঢাকা গোটা মুখ। অর্ধেক মাথা টাক আর বাকিটায় উস্কোখুস্কো চুল। সারা শরীরে ছাই মাখা। চলাফেরার সময় হেলমেট পরেন সবসময়।

দেজগাহ গ্রামের বাসিন্দারা আমো হাজির থাকার জন্য পাহাড়ি গুহার মধ্যে একটি ঘর তৈরি করে দিয়েছেন। দীর্ঘকাল ধরে তিনি বিচ্ছিন্নভাবে সেখানেই বাস করছেন। তবে কেন এই জনবিচ্ছিন্নতা? তেহরান টাইমসকে অশীতিপর বৃদ্ধ বলেন, ‘যৌবনে বড় ব্যথা পেয়েছিলাম। তাই মানুষের থেকে দূরে সরে গেছি।’ তবে কীসের সেই ব্যথা খোলাসা করেননি ইরানের এই বাসিন্দা।

কমেন্ট

<<1>>

নাম *

কমেন্ট *

সম্পর্কিত সংবাদ

© ২০১৬ | এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি | dainikprithibi.com
ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট - মোঃ রেজাউল ইসলাম রিমন