Breaking News
* 'দুর্নীতি করে কেউ যেন পার না পায়': রাষ্ট্রপতি * 'নিউইয়র্কের পথে হেলসিঙ্কি ত্যাগ করেছেন প্রধানমন্ত্রী' * 'গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনের দৃষ্টি আড়ালের ষড়যন্ত্র করছে সরকার' * 'কোনো দেশ না চাইলে জাতিসংঘ সহায়তা দিতে পারে না' * 'কাবুলে নারী কর্মীদের বাড়িতে থাকার নির্দেশ দিয়েছে তালেবান' * 'বিএনপি নতুন কৌশলে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে': কাদের * 'বাংলাদেশ ব্যাংক দিয়ে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় অস্ত্র ব্যবহার করা হচ্ছে' * 'ই-কমার্স ব্যবসাকে আইনের আওতাভুক্ত করতে হবে': অ্যাটর্নি জেনারেল * '১১ সাংবাদিক নেতার ব্যাংক হিসাব তলবের প্রতিবাদে ২৩ সেপ্টেম্বর দেশব্যাপী বিক্ষোভ' * 'আওয়ামী লীগ ৪৩ জন ইউপি চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বাধিক আলোচিত
ইতিহাসের এই দিনে, ২০ সেপ্টেম্বর 'দ্বিতীয় দফায় সিরিজ বৈঠকে বসছে বিএনপির হাইকমান্ড' 'গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনের দৃষ্টি আড়ালের ষড়যন্ত্র করছে সরকার' 'কোনো দেশ না চাইলে জাতিসংঘ সহায়তা দিতে পারে না' 'কাবুলে নারী কর্মীদের বাড়িতে থাকার নির্দেশ দিয়েছে তালেবান' 'নিউইয়র্কের পথে হেলসিঙ্কি ত্যাগ করেছেন প্রধানমন্ত্রী' 'দুর্নীতি করে কেউ যেন পার না পায়': রাষ্ট্রপতি 'বাংলাদেশ ব্যাংক দিয়ে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় অস্ত্র ব্যবহার করা হচ্ছে' 'ই-কমার্স ব্যবসাকে আইনের আওতাভুক্ত করতে হবে': অ্যাটর্নি জেনারেল '১১ সাংবাদিক নেতার ব্যাংক হিসাব তলবের প্রতিবাদে ২৩ সেপ্টেম্বর দেশব্যাপী বিক্ষোভ'

POOL

বিচার ব্যবস্থার যত উন্নয়ন সব আওয়ামী লীগের সময়েই হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আপনি কি তাঁর সাথে একমত?

Note : জরিপের ফলাফল দেখতে ভোট দিন

আনসার আল ইসলামের ‘প্রথম নারী সদস্য’ সন্দেহে গ্রেপ্তার ১

29-08-2021 | 05:34 pm
অপরাধ

ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে সিটিটিসির প্রধান মো. আসাদুজ্জামান।

ঢাকা: নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের ‘প্রথম নারী সদস্য’ সন্দেহে এক কলেজছাত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি)। ওই কলেজছাত্রীর নাম জোবায়দা সিদ্দিকা নাবিলা। তার এবার উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল।

রাজধানীর বাড্ডা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। রবিবার ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান সিটিটিসির প্রধান মো. আসাদুজ্জামান।

সিটিটিসির দাবি, এই প্রথম আনসার আল ইসলামের কোনো নারী সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হলো। এর আগে অন্যান্য জঙ্গি সংগঠনের নারী সদস্য গ্রেপ্তার হলেও তারা নাবিলার মতো ‘প্রশিক্ষিত’ ছিলেন না। ২৬ আগস্ট বাড্ডা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি এই মুহূর্তে সিটিটিসির কাছে রিমান্ডে আছেন। ভোলার লালমোহন উপজেলার বাসিন্দা জোবায়দার বাবা একজন শিক্ষক।

পরিবারকে উদ্ধৃত করে সিটিটিসি বলছে, কলেজছাত্রীর মা–বাবা তার মধ্যে পরিবর্তন ঘটার বিষয়টি বুঝতে পেরেছিলেন। সে কারণে তাকে বিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নেন। নাবিলা পাত্রের সঙ্গে দেখা করে ‘শহীদ’ হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন ও বিয়ে ভেঙে দেন। জিজ্ঞাসাবাদে নাবিলা জানিয়েছেন, তিনি ২০২০ সালের প্রথম দিকে নিজের নাম–পরিচয় গোপন করে ছদ্মনামে একটি ফেক ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খোলেন। একসময় তিনি ফেসবুকে আনসার আল ইসলামের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ ‘তিতুমীর মিডিয়া’র খোঁজ পান।

তখন তিনি এই পেজে যুক্ত হয়ে আনসার আল ইসলামের বিভিন্ন উগ্রবাদী ভিডিও, অডিও ও লেখা পড়তে শুরু করেন। এরপর তার ‘তিতুমীর মিডিয়া’র পেজের অ্যাডমিনের সঙ্গে যোগাযোগ হয়। পরে ‘তিতুমীর মিডিয়া’র পেজের ওই অ্যাডমিন আনসার আল ইসলামের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটের লিংক তাকে দেন।

এভাবে ধীরে ধীরে ওই তরুণী আনসার আল ইসলামের মতাদর্শ ছড়িয়ে দেওয়ার কাজে যুক্ত হন। ফেসবুক ও টেলিগ্রামসহ বিভিন্ন অনলাইন প্ল্যাটফর্মে ছদ্মনামে একাধিক অ্যাকাউন্ট খুলে তিনি কাজটি করতেন বলে কাউন্টার টেরোরিজম পুলিশের ভাষ্য।

সংবাদ সম্মেলনে সিটিটিসি প্রধান বলেন, ‘নাবিলা আনসার আল ইসলামের মতাদর্শ প্রচারের জন্য ব্যাপকভাবে টেলিগ্রাম মাধ্যম ব্যবহার করত। টেলিগ্রামে তার চারটি অ্যাকাউন্ট এবং সেই টেলিগ্রাম অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে ১৫টির বেশি চ্যানেল তিনি চালাতেন। এসব চ্যানেলে তিনি আনসার আল ইসলামের বিভিন্ন উগ্রবাদী সহিংস ভিডিও, অডিও, ছবি ও ফাইল শেয়ার করতেন। তার সবগুলো টেলিগ্রাম চ্যানেল মিলে আনুমানিক ২৫ হাজার সাবস্ক্রাইবার আছেন, যারা নিয়মিত তার চ্যানেলগুলো অনুসরণ করেন।’

‘জিহাদ কেন প্রয়োজন', 'কিতাবুল জিহাদ', 'একাকি শিকারি লোন উলফ', 'স্লিপার সেলগুলোতে গোয়েন্দাদের অনুপ্রবেশ প্রতিরোধের উপায়', 'নীরবে হত্যার কৌশল', 'পুলিশ শরিয়তের শত্রু', 'আল আনসার ম্যাগাজিন ইস্যু', 'জিহাদের সাধারণ দিক নির্দেশনা', 'তাগুতের শাসন থেকে মুক্তির ঘোষণা' ইত্যাদি উগ্রবাদী বই বিভিন্ন সময়ে নাবিলার টেলিগ্রাম চ্যানেলগুলো থেকে প্রকাশ করা হতো বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

সিটিটিসি বলছে, আনসার আল ইসলামের সামরিক শাখার প্রধান সেনাবাহিনী থেকে চাকরিচ্যুত সৈয়দ জিয়াউল হকের কর্মী–সমর্থকদের উদ্দেশে লেখা কিছু নির্দেশনা হাতে পেয়েছিলেন তারা। ওই নির্দেশনায় তারিখ দেওয়া আছে গত বছরের ২৯ রমজান। সেখানেই প্রথম তিনি ‘ভাই ও বোনেরা’ বলে সম্বোধন করেন। এর আগে নারীদের প্রসঙ্গ একরকম উহ্যই ছিল দলটির সব কাজকর্মে।

আসাদুজ্জামান বলেন, ‘নাবিলা আনসার আল ইসলামের বিভিন্ন অফিসিয়াল ও আনঅফিসিয়াল চ্যানেলেও যুক্ত ছিলেন। সেসব চ্যানেলে আইইডি, স্মোক বম্ব, আগ্নেয়াস্ত্র তৈরি করা এবং বিভিন্ন হামলার কৌশলগত বিষয় নিয়ে ‘ভিডিও ও ফাইল শেয়ার করতেন’ তিনি।’

তাকে ছাড়া আনসার আল ইসলামের আর কোনো নারী সদস্যের সন্ধান পাওয়া গেছে কি না জানতে চাইলে আসাদুজ্জামান বলেন, ‘এ বিষয়ে তাকে (নাবিলা) আমরা জিজ্ঞাসাবাদ করছি। তিনি আনসার আল ইসলামের যে গ্রুপের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ছিলেন, সেই লোকজনের নাম আমরা জানার চেষ্টা করছি। তবে এই মুহূর্তে এই বিষয়ে বিস্তারিত আমরা বলতে চাইছি না।’

কমেন্ট

<<1>>

নাম *

কমেন্ট *

সম্পর্কিত সংবাদ

© ২০১৬ | এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি | dainikprithibi.com
ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট - মোঃ রেজাউল ইসলাম রিমন