Breaking News
* 'প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় আরও ৫৩,৩৪০টি পরিবার জমি ও সেমিপাকা ঘর পাচ্ছে' * ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সাত প্রার্থীর তিনজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে দাঁড়ালেন' * 'ফিলিস্তিনি এক যুবকের মাথায় গুলি করলো ইসরাইল সেনা' * 'গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনায় মৃত্যু দুই হাজার ৩৩০' * 'ফতুল্লায় চালককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে ইজিবাইক ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা' * 'মিয়ানমারে স্থানীয় এক সশস্ত্র গোষ্ঠীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত ২' * 'বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৩৮ লাখ ৪৮ হাজার' * 'করোনার দক্ষিণ আফ্রিকান ভ্যারিয়েন্ট সারাবিশ্বের আতঙ্ক' * 'লকডাউনের মেয়াদ আগামী ১৫ জুলাই পর্যন্ত বাড়লো' * 'পুতিন-বাইডেনের প্রথম মুখোমুখি বৈঠক অনুষ্ঠিত'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বাধিক আলোচিত
'প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় আরও ৫৩,৩৪০টি পরিবার জমি ও সেমিপাকা ঘর পাচ্ছে' ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সাত প্রার্থীর তিনজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে দাঁড়ালেন' 'ফিলিস্তিনি এক যুবকের মাথায় গুলি করলো ইসরাইল সেনা' 'বিহারে বিপুল ভারতীয় রুপিসহ এক দুর্নীতিগ্রস্ত প্রকৌশলীকে গ্রেফতার' 'ইসলামি বক্তা আদনানের সন্ধান চেয়ে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন আসফ' 'গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনায় মৃত্যু দুই হাজার ৩৩০' 'ফতুল্লায় চালককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে ইজিবাইক ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা' 'মিয়ানমারে স্থানীয় এক সশস্ত্র গোষ্ঠীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত ২' 'বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৩৮ লাখ ৪৮ হাজার' 'আমার বিরুদ্ধে ব্লেম করা হচ্ছে, ঘটনা একেবারেই ভিত্তিহীন : পরীমনি

POOL

প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে আলাপ-আলোচনা ও সমঝোতার মাধ্যমে যেকোনো সমস্যার সমাধান হওয়া উচিত বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।আপনি কি তার সাথে একমত?

Note : জরিপের ফলাফল দেখতে ভোট দিন

'বরখাস্ত ডিআইজি মিজানুরকে কেন জামিন দেয়া হবে না, রুল জারি করেছে হাইকোর্ট'

08-06-2021 | 05:00 pm
আইন ও আদালত

ঘুষ লেনদেনের অভিযোগের দুই মামলায় সাময়িক বরখাস্ত পুলিশের আলোচিত ডিআইজি মিজানুর রহমানকে কেন জামিন দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট।

ঢাকা : অবৈধ সম্পদ অর্জন ও সম্পদের তথ্য গোপন এবং দুদক কর্মকর্তার সঙ্গে ঘুষ লেনদেনের অভিযোগের দুই মামলায় সাময়িক বরখাস্ত পুলিশের আলোচিত সেই উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমানকে কেন জামিন দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীরের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চ্যুয়াল বেঞ্চ এ রুল জারি করে। আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে ছিলেন সাবেক আইনমন্ত্রী জ্যেষ্ঠ আইনজীবী শফিক আহমেদ ও আইনজীবী মাহবুব শফিক। অপরদিকে দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

পরে আদালত থেকে বেরিয়ে খুরশীদ আলম খান বলেন, মিজানের জামিনের বিষয়ে তিন সপ্তাহের জন্য রুল জারি করা হয়েছে।

অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলা:
২০১৯ সালের ২৪ জুন দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১-এ সংস্থাটির পরিচালক মনজুর মোর্শেদ বাদী হয়ে সম্পদের তথ্য গোপন ও অবৈধ সম্পদ অwর্জনের অভিযোগে মামলা করেন।

মামলার আসামিরা হলেন— মিজানুর রহমান, তার স্ত্রী সোহেলিয়া আনার রত্না, ভাগ্নে পুলিশের এসআই মাহমুদুল হাসান ও ছোট ভাই মাহবুবুর রহমান। মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে ৩ কোটি ২৮ লাখ ৬৮ হাজার টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন ও ৩ কোটি ৭ লাখ ৫ হাজার টাকার সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগ আনা হয়।

২০১৮ সালে একটি জাতীয় দৈনিকে মিজানের বিরুদ্ধে এক সংবাদ পাঠিকাকে জোর করে বিয়ে করার সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টি ব্যাপক আলোচনার সৃষ্টি করে। ওই ঘটনায় পুলিশ সদর দপ্তরসহ দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

এরপর নানা জল্পনা-কল্পনা শেষে বিতর্কিত ডিআইজি মিজানকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনারের পদ থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ সদর দপ্তরে সংযুক্ত করা হয়। এরপর একই বছরের ২৫ জুন তাকে বরখাস্তের কথা জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

এদিকে মিজানুর রহমানের বিপুল অবৈধ সম্পদের খোঁজ পায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। অনুসন্ধান শেষে তার বিরুদ্ধে মামলার সুপারিশ করে প্রতিবেদন দাখিল করেন দুদকের পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছির।

ঘুষ লেনদেনের মামলা:
২০১৯ সালের ৯ জুন একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে প্রচারিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে পরিচালিত দুর্নীতির অনুসন্ধান থেকে দায়মুক্তি পেতে দুদক পরিচালক বাছিরকে ৪০ লাখ টাকা ঘুষ দিয়েছিলেন। ঘুষ লেনদেন সংক্রান্ত কথোপকথন রেকর্ড করে ওই চ্যানেলকে দিয়েছিলেন মিজান। ডিআইজি মিজান নিজেও এ বিষয়ে গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দেন। অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলা থেকে বাঁচতে ওই অর্থ ঘুষ দেন বলে ডিআইজি মিজান দাবি করেন।

এ প্রতিবেদন প্রচারিত হওয়ার পর দুদক সংস্থার সচিব মুহাম্মদ দিলোয়ার বখতকে প্রধান করে তিন সদস্যের উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটি গত বছর ১০ জুন প্রতিবেদন জমা দেয়। প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে পরিচালক বাছিরকে দুদকের তথ্য অবৈধভাবে পাচার, চাকরির শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও সর্বোপরি অসদাচরণের অভিযোগে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে কমিশন।

২০১৯ সালের ১৬ জুলাই ৪০ লাখ টাকার ঘুষ কেলেঙ্কারির অভিযোগে পুলিশের বরখাস্ত উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমান ও দুদক পরিচালক এনামুল বাছিরের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১-এ দুদকের পরিচালক ও অনুসন্ধান দলের নেতা শেখ মো. ফানাফিল্লাহ বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

কমেন্ট

<<1>>

নাম *

কমেন্ট *

সম্পর্কিত সংবাদ

© ২০১৬ | এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি | dainikprithibi.com
ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট - মোঃ রেজাউল ইসলাম রিমন